1. rakibchowdhury877@gmail.com : Narayanganjer Kagoj : Narayanganjer Kagoj
  2. admin@narayanganjerkagoj.com : nkagojadmin :
বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:১৫ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ফতুল্লা ইউনিয়নে উম্মে তাহেরা আঁখি’র বক মার্কা নিয়ে ভোট প্রার্থনা বক মার্কায় ভোট চাইলেন মহিলা মেম্বার প্রার্থী উম্মে তাহেরা আঁখি পানির পাম্প মার্কায় ভোট চেয়েছেন ৪নং ওয়ার্ড মেম্বারপ্রার্থী মঈনউদ্দিন মানুষের সেবায় নিজেকে বিলিয়ে দিতে চান কাজী মঈনউদ্দিন ফতুল্লায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা, আহত ৫ ফতুল্লায় মৎসজীবী লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে আনন্দ র‌্যালী খেলাধুলা মানুষের মন ও শরীরকে দৃঢ় করে : লিটন ফতুল্লার সেই কিশোরের আত্মহননের ঘটনায় মামলা খালেদার মুক্তি ও বিদেশে সুচিকিৎসার দাবিতে ডিসিকে জেলা বিএনপির স্মারকলিপি বিএনপির নেতাদের ধৈর্য্যের পরীক্ষা নিবেন না : সেন্টু সোনারগাঁয়ের মোগড়াপাড়া ইউপি নির্বাচন কার স্বার্থে হচ্ছেনা? কেন্দ্রীয় ছাত্র অধিকার পরিষদের কমিটিতে নারায়ণগঞ্জের ৪ ‘ফাস্ট টাইম মেশিন চালাইলাম’ ফতুল্লায় সেই কিশোরের আত্মহত্যা কাজী মঈনউদ্দিনের প্রথম উঠান বৈঠকে মানুষের ঢল সাংবাদিক লিংকনের মুক্তির দাবিতে প্রতিবাদ সভা

ইউপি নির্বাচনে কুতুবপুরের বিতর্কিতরা চায় মেম্বার হতে!

নিজস্ব সংবাদদাতা
  • প্রকাশিত সময় : সোমবার, ১৮ অক্টোবর, ২০২১
  • ১৬৫ বার পঠিত
ইউপি নির্বাচনে কুতুবপুরের বিতর্কিতরা চায় মেম্বার হতে!

১৭ অক্টোবর নারায়ণগঞ্জের ১৬টি ইউপিতে নির্বাচন উপলক্ষে শেষ হয়েছে প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র দাখিলের পর্ব। ২১ অক্টোবর হবে বাছাই পর্ব। তবে এবারের নির্বাচনে সবক’টি ইউপিতেই মেম্বার পদে অপরাধীদের পদচারনা একটু বেশী। আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে কুতুবপুর ইউনিয়নের একাধিক ওয়ার্ডে নানা অপরাধে অভিযুক্ত বিতর্কিতদের ইউপি সদস্য পদপ্রার্থীদের প্রচার প্রচারণার হিড়িক। ইউপি নির্বাচনকে পুজি করে বিতর্কিতরা পোস্টার, ফেস্টুন টানিয়ে সস্তা বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে নিজেদেরকে জনসাধারণের কাছে জনপ্রিয় করার চেষ্টা করে যাচ্ছেন। স্থানীয় অনেকেই আবার বলছেন, এবার কুতুবপুর ইউপি নির্বাচনে অপরাধীদের মেম্বার হওয়ার খায়েশ জেগে উঠেছে।

সূত্রে জানা যায়, তারা কেউ কেউ মাদক ব্যবসায়ী, নারী আসক্ত, কিশোর গ্যাংয়ের শেল্টারদাতা সহ বিভিন্ন অপরাধে অভিযুক্ত। অনেকের বিরুদ্ধে রয়েছে, জামাত শিবিরের বিস্ফোরণ, ত্রাণের চাউল আত্মসাৎ, প্রবাসীর স্ত্রীর সাথে পরকীয়া, যুবকদের মধ্যযুগী কায়দায় নির্যাতন, আওয়ামী লীগের অফিসে জুয়ার বোর্ড বসানোসহ সাংবাদিকের উপর হামলা মামলাসহ থানায় একাধিক জিডি ও অভিযোগ। আর সেইসব বিতর্কিত ব্যক্তিদের পোস্টার, ব্যানারে ছেয়ে গেছে গোটা কুতুবপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ড। বিতর্কিত সম্ভাব্য ইউপি সদস্য প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন, ৬ নং ওয়ার্ডের সম্ভাব্য সদস্য পদপ্রার্থী মাহাবুবুর রহমান বাচ্চু, নজরুল ইসলাম, ৫ নং ওয়ার্ডের মেম্বার আলাউদ্দিন হাওলাদার, ৪ নং ওয়ার্ডের শফিকুল ইসলাম শফি, ৮ নং ওয়ার্ডে জুয়েল শেখ।

কুতুবপুর ইউনিয়ন ৪ নং ওয়ার্ডের সাধারণ ভোটার রহমত আলী বলেন, আমাদের এই ওয়ার্ডে অনেকেই আসন্ন ইউপি নির্বাচনে সম্ভাব্য সদস্য প্রার্থী হিসেবে প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। তাদের মধ্যে অন্যতম একজন শফিকুল ইসলাম শফি তিনি জুয়াড়ি শফি নামে এলাকায় পরিচিত। তার অপরাধের শেষ নেই, মাদক ব্যবসা, নারী কেলেংকারী, চাঁদাবাজি, আওয়ামী লীগের অফিসে জুয়া বোর্ড বসানোসহ একাধিক অভিযোগে অভিযুক্ত। কুতুবপুর ইউনিয়ন ৫ নং ওয়ার্ডের সাধারণ ভোটার আরব আলী খাঁ বলেন, আমাদের এই ওয়ার্ডে আলাউদ্দিন হাওলাদার মেম্বার নির্বাচিত হওয়ার পরথেকে আমারা সর্বাধিক অবহেলিত। তার বিতর্কিত কর্মকান্ডের শেষ নেই। তিনিও আবারও মেম্বার হতে চায়। সম্প্রতি দুই যুবককে মধ্যযুগী কায়দায় পিটিয়ে জেলে যেতে হয়েছে তাকে। তার বিরুদ্ধে রয়েছে অবৈধ গ্যাস সংযোগ, জোরপূর্বক জমি দখল, নারী গঠিত অভিযোগ সহ বিভিন্ন অপরাধে অভিযুক্ত।

কুতুবপুর ইউনিয়ন ৬ নং ওয়ার্ডের সাধারণ ভোটার রফিক উদ্দিন বলেন, বিগত দিনগুলোতে যারা নানা অপকর্মে জড়িত তারাই এবার এই ওয়ার্ডের মেম্বার পদপ্রার্থী। তিনি আরো বলেন, এই ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থীদের মধ্যে মাহাবুবুর রহমান বাচ্চুর বিরুদ্ধে সম্প্রতি অনেক অভিযোগ রয়েছে, প্যারাডাইস সিটিতে কালাম স্যারের বাসায় প্রবাসীর স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া, করোনাভাইরাসে সারাবিশ্ব যখন ক্ষতিগ্রস্ত ঠিক তখনি অসহায় মানুষদের ত্রাণের চাউল আত্মসাৎ, লকডাউনে সরকারের আদেশ অমান্য করে পাগলা বাজার মার্কেট খোলা রাখায় সংবাদ প্রকাশিত করায় দুই সংবাদকর্মীর উপর সন্ত্রাসী হামলা চালায় বিতর্কিত বাচ্চু। এখানেই তার অপরাধের শেষ নয়, এসপির নাম ব্যবহার করে চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অপকর্মে জড়িত। আরেক জন নজরুল ইসলাম তিনি কখনো বিএনপির নেতা আবার পুলিশের সোর্স কখনোবা জুয়াড়ি তার নেই কোনো ধরনের যোগ্যতা।

কুতুবপুর ইউনিয়ন ৮ নং ওয়ার্ডের সাধারণ ভোটার যোবায়ের বলেন, অপরাধী ব্যক্তিরা কিভাবে ইলেকশন করার সাহস পায়। জুয়েলের মত অপরাধী যদি এই ওয়ার্ডের মেম্বার হয় তাহলে জনসাধারণ মানুষ কতটুকু নিরাপদ? যার বিরুদ্ধে রয়েছে মাদক ব্যবসা নিয়ন্ত্রণের অভিযোগ, কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা, জামায়েত শিবিরের গ্রেনেড বিস্ফোরক মামলা সহ বিভিন্ন অভিযোগ। তার নেই নুন্যতম শিক্ষাযোগ্যতা, তারমত অপরাধীরাও পোস্টার, ফেস্টুনের মাধ্যমে নির্বাচনীয় প্রচার প্রচারণায় ব্যস্ত।

নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক এক ব্যক্তি বলেন, এবার কুতুবপুর ইউপি নির্বাচনে একাধিক ওয়ার্ডে অপরাধীদের মেম্বার হওয়ার খায়েশ জেগে উঠেছে। ইতিমধ্যে মধ্যে মনোনয়নপত্র দাখিল করার পড়ে সেসব অপরাধ চক্র নিজেদের আখের গুছানোর চেষ্টা চালাচ্ছেন বলেও তিনি জানান। তিনি আরো বলেন, বিতর্কিত যারা প্রচার প্রচারণা চালাচ্ছেন তারা নিজেরাও জানেন, ভোটারদের ভোটে নির্বাচিত হওয়া তাদের পক্ষে সম্ভব হবে না। তারপরও তাদের নিজেদের সস্তা পরিচিতির একটি মাধ্যম হিসেবে এই নির্বাচনকে কাজে লাগিয়ে মাদক, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি, চুরি, ছিনতাই সহ বিভিন্ন অপরাধের রামরাজত্ব কায়েম করার চেষ্টা করছেন তারা। এসব বিষয় গুলোতে নির্বাচন কমিশন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ সুশীল সমাজের ব্যক্তিদের যথাযথ গুরুত্ব দেওয়ার অনুরোধ জানান তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন :

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন...

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..

error: Content is protected !!