1. rakibchowdhury877@gmail.com : Narayanganjer Kagoj : Narayanganjer Kagoj
  2. admin@narayanganjerkagoj.com : nkagojadmin :
শুক্রবার, ০৩ জুলাই ২০২০, ০৮:২৫ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ফতুল্লায় ডাইংয়ে অগ্নিকান্ড করোনা রোগীদের জন্য অক্সিজেন সিলিন্ডার দিল আব্দুল মজিদ ফাউন্ডেশন বিনামূল্যে করোনা পরীক্ষার দাবিতে সড়ক অবরোধ আমরা প্রনোদনা চাই না, নিয়মিত কোর্ট চালু করা হোক খানপুর হাসপাতালে আইসিইউ ইউনিট চালু রূপগঞ্জে নিখোঁজের ৩ মাস পর ব্যবসায়ীর ড্রামভর্তি লাশ উদ্ধার সৈয়দপুর বঙ্গবন্ধু উচ্চ বিদ্যালয়ে নির্মিত হচ্ছে আধুনিক অডিটরিয়াম গোগনগর ইউপিতে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ বক্তাবলী ইউপিতে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের চাল বিতরণ সাংবাদিক জুম্মন সোহেলকে মাদক ব্যবসায়ীর হুমকি, থানায় জিডি চঞ্চল হত্যার বিচার চেয়ে মানববন্ধন আজ উল্টো রথযাত্রা উৎসব : নিজ মন্দিরে ফিরবেন জগন্নাথ করোনা মুক্ত হলেন ফতুল্লা থানার ওসি আসলাম হোসেন ফেসবুকে সরকার বিরোধী পোস্ট করায় বৃদ্ধ গ্রেফতার কবি দুখু বাঙালের জন্মদিন

উচ্চশিক্ষিত বেকারত্বের হার বাড়ছে : বেসরকারি খাতে স্থবিরতা

নারায়ণগঞ্জের কাগজ ডেস্ক
  • প্রকাশিত সময় : শনিবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
  • ১৭৭ বার পঠিত
উচ্চশিক্ষিত বেকারত্বের হার বাড়ছে : বেসরকারি খাতে স্থবিরতা

নারায়ণগঞ্জের কাগজ : দেশে উচ্চশিক্ষিতের হার বাড়ছে। সে হারে কর্মসংস্থান বৃদ্ধি না হওয়ায় বাড়ছে বেকারত্বের হার। চাকরির বাজারে সরকারি খাতের অবদান চার শতাংশেরও কম। সরকারি চাকরিতে বর্তমানে বেতন কাঠামো যেমন আকর্ষণীয় তেমন সুযোগ-সুবিধাও বেসরকারি খাতের চেয়ে বেশি। কিন্তু সরকারি চাকরি প্রাপ্তিতে বিসিএস ক্যাডার সার্ভিস বাদে অন্যান্য ক্ষেত্রে যোগ্যতার বদলে উৎকোচ ও তদ্বিরই নিয়ামক হিসেবে কাজ করে। চাকরির জন্য পাঁচ থেকে পঁচিশ লাখ টাকা লেনদেনের বিষয়টি ওপেন সিক্রেট।

বেসরকারি বা ব্যক্তিখাতের বিকাশ সাম্প্রতিক বছরগুলোতে সেভাবে না হওয়ায় দেশজুড়ে এখন লাখ লাখ উচ্চশিক্ষিত বেকার দেশ ও জাতির জন্য বোঝা হয়ে দাঁড়িয়েছে। উচ্চশিক্ষিত একজন যুবক বা যুবতীকে এখন ১৫-২০ হাজার টাকা বেতনের চাকরির জন্য দ্বারে দ্বারে ঘুরতে হয়। যে অর্থ একজন রিকশা চালকের এমনকি দিনমজুরের আয়ের চেয়ে বেশি নয়। দেশে শিক্ষিত বেকারের সংখ্যা স্পুটনিক গতিতে বাড়লেও শিক্ষাব্যবস্থার ত্র“টির জন্য প্রশিক্ষিত বা দক্ষ জনশক্তি বাড়ছে না। ফলে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো বিশেষ করে করপোরেট ও মাল্টি ন্যাশনাল প্রতিষ্ঠানগুলো বিদেশিদের নিয়োগ দিতে বাধ্য হচ্ছে। দেশে উচ্চশিক্ষিত বেকারের সংখ্যা বিপুলভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় সামাজিক অস্থিরতার আশঙ্কা জোরদার হচ্ছে। বেকারত্বের লাগাম টেনে ধরতে বেসরকারি খাতের উন্নয়নে সরকারকে কার্যকর উদ্যোগ নিতে হবে।

দেশে গার্মেন্টসহ বিভিন্ন শিল্পে ম্যানেজমেন্ট লেভেলের চাকরির জন্য শ্রীলঙ্কা, ভারত, চীন ও কোরিয়া থেকে লোক আনা হয়। দেশের উদ্যোক্তারা দুটি কারণে বাইরের লোকজনদের এসব কাজে তাদের প্রতিষ্ঠানে নিয়োগ দিতে চায়। প্রথমটি হলো, বাইরের লোকদের নিয়ন্ত্রণ করা খুব সহজ। দ্বিতীয়ত, তাদের দিয়ে কাজ করা উদ্যোক্তাদের জন্য অনেক সহজ হয়। দেশের লোকজনকে এই লেভেলে নিয়োগ করা হলে প্রতিষ্ঠানে পলিটিক্স ঢুকে যায়। এ অবস্থার উত্তরণে রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে ম্যানেজমেন্ট ইনস্টিটিউট গড়ে তুলতে হবে। দেশের শিল্প কলকারখানার চাহিদা পূরণ করে এমন শিক্ষা বা প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করাও জরুরি। যাতে বিদেশিদের ওপর নির্ভরতা কাটিয়ে ওঠা যায়।

নিউজটি শেয়ার করুন :

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন...

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..

error: Content is protected !!