1. rakibchowdhury877@gmail.com : Narayanganjer Kagoj : Narayanganjer Kagoj
  2. admin@narayanganjerkagoj.com : nkagojadmin :
শুক্রবার, ০৩ জুলাই ২০২০, ০৬:৫৫ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ফতুল্লায় ডাইংয়ে অগ্নিকান্ড করোনা রোগীদের জন্য অক্সিজেন সিলিন্ডার দিল আব্দুল মজিদ ফাউন্ডেশন বিনামূল্যে করোনা পরীক্ষার দাবিতে সড়ক অবরোধ আমরা প্রনোদনা চাই না, নিয়মিত কোর্ট চালু করা হোক খানপুর হাসপাতালে আইসিইউ ইউনিট চালু রূপগঞ্জে নিখোঁজের ৩ মাস পর ব্যবসায়ীর ড্রামভর্তি লাশ উদ্ধার সৈয়দপুর বঙ্গবন্ধু উচ্চ বিদ্যালয়ে নির্মিত হচ্ছে আধুনিক অডিটরিয়াম গোগনগর ইউপিতে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ বক্তাবলী ইউপিতে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের চাল বিতরণ সাংবাদিক জুম্মন সোহেলকে মাদক ব্যবসায়ীর হুমকি, থানায় জিডি চঞ্চল হত্যার বিচার চেয়ে মানববন্ধন আজ উল্টো রথযাত্রা উৎসব : নিজ মন্দিরে ফিরবেন জগন্নাথ করোনা মুক্ত হলেন ফতুল্লা থানার ওসি আসলাম হোসেন ফেসবুকে সরকার বিরোধী পোস্ট করায় বৃদ্ধ গ্রেফতার কবি দুখু বাঙালের জন্মদিন

পাগলনাথ মন্দিরের সম্পত্তিতে শিবু দাস মোহন্তের বিরুদ্ধে স্থাপনা নির্মাণের অভিযোগ

ফতুল্লা সংবাদদাতা
  • প্রকাশিত সময় : বৃহস্পতিবার, ২৫ জুন, ২০২০
  • ৩২২ বার পঠিত
পাগলনাথ মন্দিরের সম্পত্তিতে শিবু দাস মোহন্তের বিরুদ্ধে স্থাপনা নির্মাণের অভিযোগ

স্থাপনা নির্মাণে সরকারি নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্ত্বেও নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার কুতুবপুর ইউনিয়নের পাগলার পাগলনাথ মন্দিরের দেবোত্তর সম্পত্তি বিক্রি ও পাকা স্থাপনা নির্মাণ করে মোটা অংকের অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার মহোৎসবে মেতে উঠার অভিযোগ উঠেছে পাগলনাথ মন্দিরের সেবায়েত শিবু দাস মোহন্ত ও তার গুণধর পুত্র চিন্ময় দাস মোহন্ত এবং শংকর চন্দ্র সরকারের বিরুদ্ধে। এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন পাগলা পাগলনাথ মন্দির ও রামসীতা মন্দিরের সভাপতি শিবু দাস।

পাগলা পাগলনাথ মন্দির ও রামসীতা মন্দিরের সভাপতি শিবু দাস অভিযোগের বরাত দিয়ে জানান, পাগলা পাগলনাথ মন্দিরের জমিতে বেআইনি ও জোরপূর্বক ভাবে দোকান ঘর তুলে ব্যবসা করে। আমি শিবু দাস মোহন্ত ও তার পুত্র চিন্ময় দাস সহ তাদের অনুসারীদের বাধা ও নিষেধ করিলে তারা নারায়ণগঞ্জ জজ কোর্টে দেওয়ানী মামলা দায়ের করে। যার মামলা নং-২৬৯/১৭। যা চলমান রয়েছে। এমতাবস্থায় বিজ্ঞ আদালত ওই জমিতে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারি করা সহ উক্ত নালিশি ভূমিতে উভয়পক্ষকে কোনপ্রকার নির্মাণ কাজ না করার জন্য নির্দেশ প্রদান করেন। কিন্তু গত ২১ এপ্রিল সকাল ১০টার সময় বিবাদীগন বিজ্ঞ আদালতের নির্দেশ অমান্য করে পাগলা বাজার মন্দিরের ভূমিতে নির্মাণ কাজ পরিচালনা করে। আমি সংবাদ পেয়ে বিবাদীগনকে বাধা ও নিষেধ করলে তারা নির্মাণ কাজ বন্ধ করে চলে যায়। এরই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) সকাল ৯টার সময় বিবাদীগন বিজ্ঞ আদালতের নির্দেশ অমান্য করে পাগলা বাজার মন্দিরের ভূমিতে দোকান-ঘর নির্মাণ নির্মাণ কাজ পরিচালনা করে। আমি বিবাদীগনকে বাধা ও নিষেধ করলে আমাকে মারধর করতে তেড়ে আসে ও প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করে তাড়িয়ে দেয়। তাদের এহেন কার্যকলাপে আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছি, তারা যেকোন সময় আমার বড় ধরনের ক্ষতি করতে পারে। তাই আমি আমার নিরাপত্তার স্বার্থে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছি।

প্রসঙ্গত, দীর্ঘ কয়েকবছর মন্দিরের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ রয়েছে শিবু দাস মোহন্ত তার অনুসারীদের বিরুদ্ধে। পাশাপাশি পাগলা বাজারের দোকান উচ্ছেদের পেছন থেকে তারা যে কলকাঠি নেড়েছে তাও স্পষ্ট হয়ে উঠেছে ব্যবসায়ীদের মাঝে। এসবের পরেও তারা থেমে নেই। অদৃশ্য শক্তির ইশারায় নতুন করে তারা পাগলা বাজারের পাগলনাথ মন্দিরের দেবোত্তর জায়গায় পাকা স্থাপনা নির্মাণ ও তা বিক্রি করে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেওয়ার পায়তারা করছে।

নিউজটি শেয়ার করুন :

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন...

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..

error: Content is protected !!