ফতুল্লায় সামেদ আলী-রহিম হাজ্বী গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ১৫
  1. rakibchowdhury877@gmail.com : Narayanganjer Kagoj : Narayanganjer Kagoj
  2. admin@narayanganjerkagoj.com : Narayanganjer Kagoj : Narayanganjer Kagoj
ফতুল্লায় সামেদ আলী-রহিম হাজ্বী গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ১৫
সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ১১:১২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
মৃত্যুর পর ঋণ নিয়ছেন ১৪ জন ফতুল্লায় অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার রূপগঞ্জে ছাত্রলীগ কর্মীকে কুপিয়ে জখম বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপে চ্যাম্পিয়ন নারায়ণগঞ্জ দলকে সংবর্ধনা নারায়ণগঞ্জে জমে উঠতে শুরু করেছে কোরবানির পশুর হাট ধলেশ্বরী নদী থেকে ইটবাঁধা মরদেহ উদ্ধার ফতুল্লায় শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী আল-আমিন গ্রেফতার ফতুল্লায় দূর্জয়-সিফাত বাহিনীর ৬ সদস্য গ্রেপ্তার সাইবার নিরাপত্তা আইন মত প্রকাশের অন্তরায় : টিআইবি এখন গরিবেরা তিনবেলা ভাত খায় আর ধনীরা খায় আটা : খাদ্যমন্ত্রী সামেদ আলী আমার শেল্টারে ছিলো না : শওকত আলী সোনারগাঁয়ের যাত্রীবাহী বাসে হঠাৎ আগুন চিন্তায় মোদি আট মাত্রার ভূমিকম্প হতে পারে ঢাকায় : ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী রূপগঞ্জে ওটিতে প্রসূতির মৃত্যু, ক্লিনিক ভাঙচুর

ফতুল্লায় সামেদ আলী-রহিম হাজ্বী গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ১৫

নারায়ণগঞ্জের কাগজ ডেস্ক
  • প্রকাশিত সময় : সোমবার, ২৭ মে, ২০২৪
  • ২১৮ বার পঠিত
ফতুল্লায় সামেদ আলী-রহিম হাজ্বী গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ১৫

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় সামেদ আলী ও রহিম হাজ্বী গ্রুপের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। এতে ৫ জন টেটাবিদ্ধসহ ১৫ জন আহত হয়েছে। এসময় ৫/৬টি বাড়ি ভাংচুর করেছে সন্ত্রাসীরা। খবর পেয়ে ফাঁকা গুলি ছুড়ে ধাওয়া করে সন্ত্রাসীদের সংঘর্ষ থামিয়েছে পুলিশ। রবিবার (২৬ মে) বিকালে ফতুল্লার বক্তাবলী ইউনিয়নের আকবরনগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। তাৎক্ষনিক আহতদের নাম পাওয়া যায়নি।

এলাকাবাসী জানান, রহিম হাজী ও সামেদ আলী গ্রুপের মধ্যে প্রায় এক যুগ ধরে প্রভাব বিস্তারকে কেন্দ্র করে সংর্ঘষ চলে আসছে। তাদের এ সংঘর্ষে বিভিন্ন সময় উভয় গ্রুপের একাধীক লোক টেটাবৃদ্ধ হয়ে নিহত হয়।

এতে মামলা হয় মুন্সিগঞ্জের টঙ্গীবাড়ি ও ফতুল্লা থানায় অন্তত অর্ধশতাধীক মামলা হয়। আকবর নগর এলাকার কিছু অংশ টঙ্গীবাড়ি থানায় এবং কিছু অংশ ফতুল্লা থানায় অবস্থিত। এতে পুলিশ চেষ্টা করেও তাদের সন্ত্রাসী কর্মকান্ড প্রতিহত করতে পারছেনা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে রোববার দুপুর থেকে রহিম হাজী ও সামেদ আলী গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা চলে আসছে। বিকেলে উভয় পক্ষ মুখোমুখি অবস্থান নিয়ে টেটা রাম দা হাতে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে উভয় পক্ষের ৫ জন টেটাবিদ্ধসহ ১৫ জন আহত হয়েছে।। তাৎক্ষনিক আহতদের বিভিন্ন হাসপাতালে নেয়া হয়। এসময় উভয় গ্রুপের লোকজনই ৫/৬টি বাড়ি ভাংচুর করে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে ধাওয়া করে ফাঁকা গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি শান্ত করেন।

ফতুল্লা বক্তাবলী পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (এসআই) মফিজ উদ্দিন জানান, ১৭ রাউন্ড শর্টগানের ফাঁকা গুলি ছুড়ে সন্ত্রাসীদের ধাওয়া করে পরিস্থিতি শান্ত করা হয়েছে। আকবরনগরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। দুই গ্রুপের সংঘর্ষে একাধিক লোকজন টেটাবৃদ্ধ হয়েছে। আহতদের নাম পরিচয় জানার চেষ্টা চলছে।

নিউজটি শেয়ার করুন :

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন...

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..