1. rakibchowdhury877@gmail.com : Narayanganjer Kagoj : Narayanganjer Kagoj
  2. admin@narayanganjerkagoj.com : nkagojadmin :
শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৩০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ফতুল্লায় গৃহবধূ নিহতের ঘটনায় মামলা কোন অপরাধীকে ছাড় দেয়া হবে না : ওসি আইসিপি ফতুল্লা সাংবাদিক কাজী আনিসুল হকের জন্মদিবস পালন জালকুড়িতে আ’লীগের নাম ভাঙ্গিয়ে চাঁদাবাজি, বেপরোয়া জামান বক্স চাটখিল উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি অনুমোদন ফতুল্লায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের ২৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন ঈদুল আজহা উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জবাসীকে ডা. মোস্তাফিজুর রহমানের শুভেচ্ছা ঈদুল আজহা উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জবাসীকে রাফিউল হাকিম মহিউদ্দিনের শুভেচ্ছা ঈদুল আজহা উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জবাসীকে হারুনুর রশিদের শুভেচ্ছা ঈদুল আজহা উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জবাসীকে ইকবাল মাদবরের শুভেচ্ছা ঈদুল আজহা উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জবাসীকে মীর সোহেলের পক্ষে সাইফুলের শুভেচ্ছা ঈদুল আজহা উপলক্ষে ফতুল্লাবাসীকে আব্দুল খালেক টিপুর শুভেচ্ছা ঈদুল আজহা উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জবাসীকে রিয়াদ মোঃ চৌধুরীর শুভেচ্ছা ঈদুল আজহা উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জবাসীকে আরফান মাহমুদ বাবুর শুভেচ্ছা ঈদুল আজহা উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জবাসীকে প্রবাসী রাকিবুল ইসলাম রকির শুভেচ্ছা

ফতুল্লায় গৃহবধূ নিহতের ঘটনায় মামলা

নারায়ণগঞ্জের কাগজ ডেস্ক
  • প্রকাশিত সময় : শনিবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৪০ বার পঠিত
ফতুল্লায় গৃহবধূ নিহতের ঘটনায় মামলা

ফতুল্লার মাসদাইরে গৃহবধূ মারিয়া আক্তার নিহতের ঘটনায় নিহতের মা বাদী হয়ে নিহতের স্বামী রিফাতসহ ৪ জনকে আসামী করে শনিবার ফতুল্লা মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছে।

মামলার আসামীরা হলো- মুন্সিগঞ্জ জেলার টঙ্গীবাড়ী থানার আউটশাহী গ্রামের লিটন শেখের পুত্র ও ফতুল্লা মডেল থানার মাসদাইর ছোট কবরস্থানের শাহাদাতের বাড়ীর চতূর্থ তলার ভাড়াটিয়া নিহত মারিয়া আক্তারের স্বামী রিফাত (২১), নিহতের দেবর আশরাফুল (১৮), নিহতের শ্বাশুড়ি আনেয়ারা বেগম (৫০) সহ নিহতের স্বামীর বোন জামাই সাহেদ বাবু (২৫)।

এর আগে পুলিশ শুক্রবার বিকেল মামলার এজাহার নামীয় তিন আসামী নিহতের স্বামী রিফাত, শ্বাশুড়ি আনোয়ারা বেগম ও দেবর আশরাফুলকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃতদের এজাহারনামীয় তিন আসামীর মধ্যে নিহতের স্বামী রিফাত ও দেবর আশরাফুল কে সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে এবং শ্বাশুড়ি আনোয়ার বেগমকে হত্যা মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে শনিবার আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

ফতুল্লা মডেল থানার ইনচার্জ রকিবুজ্জামান জানান, গৃহবধু মারিয়ার মৃত্যুর বিষয়টি শুরুতেই হত্যাকান্ড বলে মনে হয়েছিলো। পুলিশ মোটামুটি নিশ্চিত হয়েই ঘটনার পরপর শহরের জেনারল (ভিক্টোরিয়া) হাসপাতাল ও মাসদাইরে অভিযান চালিয়ে নিহতের স্বামী, দেবর ও শ্বাশুড়িকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। নিহতের মা আজ (শনিবার) বাদী হয়ে চারজনের নাম উল্লেখ্য করে মামলা দায়ের করেছে। তিনজনকে ইতিমধ্যেই গ্রেফতার করা হয়েছে। এজাহারনামীয় অপর একজনকে গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে তিনি জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন :

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন...

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..

error: Content is protected !!