1. rakibchowdhury877@gmail.com : Narayanganjer Kagoj : Narayanganjer Kagoj
  2. admin@narayanganjerkagoj.com : nkagojadmin :
বৃহস্পতিবার, ০৯ জুলাই ২০২০, ০৩:৫৭ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
নয়ামাটিতে জোরপূর্বক জায়গা দখলে বাধা দেওয়ায় পিটিয়ে হাত ভেঙ্গে দিয়েছে বাবুল গংরা শীতলক্ষ্যায় বাল্কহেড ডুবি সুকানী নিহত পিবিআই’র পুলিশ সুপার হিসেবে মনিরুল ইসলামের যোগদান সিদ্ধিরগঞ্জে দু’পক্ষের সংঘর্ষ : আহত ১০ রাস্তা সংস্কারের জন্য বৈঠকখানা ফাউন্ডেশনকে অর্থ প্রদান করলেন ফরিদ আহম্মেদ লিটন নির্মল রঞ্জন গুহ, আলো ও নিজাম উদ্দিনের রোগমুক্তি কামনায় জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের দোয়া করোনামুক্ত ও পুরোপুরি সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন শ্রমিক নেতা পলাশ রূপগঞ্জে ব্যবসায়ী হত্যার বিচার দাবিতে মানববন্ধন আড়াইহাজারে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ১ আড়াইহাজারে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে শ্রমিক নিহত আড়াইহাজারে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু ফতুল্লায় মাদকসহ আকাশ গ্রেফতার পাগলায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ইলেকট্রিক মিস্ত্রির মৃত্যু সাংবাদিক রণজিৎ মোদকের ৬৫তম জন্মদিন আজ ফতুল্লার বাইতুল আফিয়া মসজিদ সড়কের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন

ফতুল্লায় ভাড়াটিয়াকে ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে হত্যাচেষ্টা : রহস্যজনক পুলিশ

ফতুল্লা সংবাদদাতা
  • প্রকাশিত সময় : সোমবার, ২২ জুন, ২০২০
  • ৩৭৬ বার পঠিত
ফতুল্লায় ভাড়াটিয়াকে ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে হত্যাচেষ্টা : রহস্যজনক পুলিশ

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় ভাড়াটিয়াকে ধর্ষণ করতে ব্যর্থ হয়ে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করার চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে বাড়িওয়ালার পুত্রের বিরুদ্ধে। রবিবার (২১ জুন) রাত তিনটায় ফতুল্লা রেলস্টেশন এলাকায় ব্যাংকার মান্নান হাজ্বীর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার শিকার পরিবারটির অভিযোগ পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযোগের সত্যতা পেয়েও অভিযুক্ত লম্পট বাড়িওয়ালার পুত্র মিলন (৩৫) কে গ্রেফতার না করেই চলে আসে।

তবে তদন্তকারী কর্মকর্তা মিজানুর রহমান বাদী পক্ষের অভিযোগ অস্বীকার করে সাংবাদিকদের জানান, তিনি ঘটনাস্থলে গিয়েছিলেন। অভিযুক্ত মিলন ভাড়াটিয়ার ঘরে প্রবেশ করেছিলো সত্যি কিন্তু ধর্ষণ করতে পারেনি। তাছাড়া অভিযুক্ত মিলন বাসায় না থাকায় তাকে গ্রেফতার করতে পারেনি। তবে অভিযুক্ত লম্পট মিলনকে গ্রেফতার করা হবে বলে তিনি জানান।

একটি বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়, গণমাধ্যমকর্মীরা বিষয়টি অবগত হওয়ায় তদন্তকারী কর্মকর্তা মিজানুর মুঠোফোনে বাদীর পরিবারের সদস্যদের ফোন করে হুমকি দেয় যে, আমাকে চিনিস না আমি দারোগা মিজান। সাংবাদিকদের জানিয়েছিস পিটিয়ে পাছার ছাল তুলে নিবো। বিষয়টি নিয়ে বেশি বাড়াবাড়ি করিস না, তাহলে কিন্তু ভালো হবেনা। আর তাই থানায় অভিযোগ করেও পুলিশি হুমকি ও অভিযুক্ত মিলন ও তার পরিবারের সদস্যদের হুমকির মুখে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে পরিবারটি।

ঘটনার বিবরনীতে জানা যায়, রামগতি জেলার লক্ষ্মীপুর থানার চরকালোকপা গ্রামের আব্দুল খালেকের মেয়ে খুশি (১৬) স্ব-পরিবারে ফতুল্লা রেলস্টেশন এলাকার মান্নান হাজ্বীর বাড়িতে ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করে আসছে। বাড়ীওয়ালার লম্পট পুত্র মিলন তাকে বেশ কিছুদিন যাবৎ কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিলো। গত কয়েকদিন পূর্বে গভীর রাতে মিলন তার ঘরে প্রবেশ করে তার শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে। এ বিষয়ে সে বাড়িওয়ালা সহ বাড়িওয়ালার স্ত্রীকে বিষয়টি অবগত করলে তারা বিচারের আশ্বাস প্রদান করলেও তারা তা করেনি। বরং উল্টো ২১ তারিখ রবিবার দিবাগত রাত ৩টায় মিলন তার ঘরে প্রবেশ করে তাকে জড়িয়ে ধরে ধর্ষণের চেষ্টা করলে তার ঘুম ভেঙে গেলে সে চিৎকার করার চেষ্টা করলে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করার চেষ্টা করে। এ সময় সে জীবন বাঁচাতে হাত-পা ছুড়ে ধাপাধাপি করলে তার পাশে শুয়ে থাকা তার ভাই জাগ্রত হয়ে মিলনকে জাপটে ধরে ফেলার চেষ্টা করে। এ সময় মিলন তার ভাইকে ধাক্কা মেরে মাটিতে ফেলে দিয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায়। ঘটনার পরপর তারা বাড়ির মালিককে বিষয়টি অবগত করে থানায় এসে লিখিত অভিযোগ দায়ের করে।

এ বিষয়ে অভিযোগকারী খুশির সাথে কথা হলে তিনি বলেন, অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা ঘটনাস্থলে গিয়েছিলেন এ সময় বাড়ীর ভিতরে থাকা আরো একাধিক ভাড়াটিয়া মিলনের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানী- শ্লীলতাহানির বর্ণনা করেন। কিন্তু সকল কিছু প্রমাণ পাওয়ার পরেও ঘরের ভিতরে লুকিয়ে থাকা অভিযুক্ত লম্পট মিলনকে গ্রেফতার না করে বাড়িওয়ালার সাথে কথা বলেই তিনি চলে আসেন।

খুশি আরো বলেন, পুলিশ বাসা থেকে বের হতে না হতেই মিলন ও তার পরিবারের সদস্যরা তাকে ও তার পরিবারের সদস্যদের অকথ্য ভাষায় গালমন্দ সহ মারধর করার জন্য তেড়ে আসে। নিজের ইজ্জত বাঁচিয়ে লম্পটের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেও আমরা নিরাপদ নই, তাহলে কার কাছে বিচার চাইবো আমরা।

এদিকে স্থানীয়রা সহ ওই বাড়ির ভাড়াটিয়ারা জানায় যে, অভিযুক্ত মিলন একজন মাদকাসক্ত। তাদের বাড়ির একাধিক নারীর শ্লীলতাহানির চেষ্টা করেছে। তবে ঘটনাস্থলে তদন্তে আাসা পুলিশ কর্মকর্তা মিজানুর রহমান লম্পট মিলনকে গ্রেফতার না করেই চলে যায়। তদন্তকারী কর্মকর্তার এমন ভুমিকায় স্থানীয়দের মাঝে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন :

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন...

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..

error: Content is protected !!