1. rakibchowdhury877@gmail.com : Narayanganjer Kagoj : Narayanganjer Kagoj
  2. admin@narayanganjerkagoj.com : nkagojadmin :
মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ০৩:২২ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
আমি চাই আপনাদের উন্নয়ন : শামীম ওসমান ফতুল্লায় জাতীয় শোক দিবস পালন বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকীতে যুবলীগ নেতা আজমত আলীর নানা কর্মসূচি আলীগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস পালন জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ফতুল্লা রিপোর্টার্স ক্লাবে দোয়া ফতুল্লায় যুবলীগ নেতা চুন্নুর উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকী পালন শ্রমিক নেতা আজিজুলের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকী পালন ফতুল্লায় মুজিবরের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকী পালন জাতীয় শোক দিবসে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে জেলা প্রশাসনের শ্রদ্ধাঞ্জলি জাতীয় শোক দিবসে ফরিদ আহম্মেদ লিটনের শ্রদ্ধাঞ্জলি প্রতিমন্ত্রীর মর্যাদা পাওয়ায় মেয়র আইভীকে পলাশের ফুলেল শুভেচ্ছা কুতুবপুরের মেম্বার বাবুল মিয়ার ব্যাপক অনিয়ম!! বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকীতে মিজানুর রহমানের বিনম্র শ্রদ্ধা শ্রমিক লীগ সভাপতি সোহেলকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ ফতুল্লায় যৌতুক মামলায় এডভোকেট গ্রেফতার

ফতুল্লায় যুবককে নির্যাতন করলো বিএনপি নেতা তৈয়ব ম্যানেজার

নারায়ণগঞ্জের কাগজ ডেস্ক
  • প্রকাশিত সময় : রবিবার, ২৬ জুন, ২০২২
  • ৮২ বার পঠিত
ফতুল্লায় যুবককে নির্যাতন করলো বিএনপি নেতা তৈয়ব ম্যানেজার!

ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতির বিয়াই ও বিএনপি নেতা তৈয়ব ম্যানেজার এর বিরুদ্ধে শরিফ হোসেন (১৯) নামে এক নিরীহ শ্রমিককে বাড়িতে ধরে নিয়ে হাত-পা বেঁধে একটি ঘরে আটকে রেখে মধ্যযুগীয় কায়দায় লাঠি ও বন্দুকের বাট দিয়ে বেদম মারপিট করে গুরুতর জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার (২৫ জুন) রাত সাড়ে ৭টার দিকে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার পূর্ব সেহাচর লালখাঁ এলাকায় তৈয়ব ম্যানেজারের বাড়ির টর্চারসেলে।

শরিফ হোসেন পূর্ব সেহাচর লালখাঁ এলাকার বুলু মিয়ার ছেলে ও তক্কারমাঠ এলাকার পিন্টু মিয়ার হোসিয়ারী কারখানার শ্রমিক।

নির্যাতনের শিকার শরিফ হোসেনের মা জানান, আমার ছেলের সাথে তার বন্ধুর সাথে সামান্য বিষয় নিয়ে তর্কবিতর্ক হয়, এক পর্যায় শরিফ তার বন্ধুকে একটি চর মারে। ছেলের বন্ধু তৈয়ব ম্যানেজারের ফ্যাক্টরী হৃদয় গ্রুপের শ্রমিক। শনিবার (২৫ জুন) রাত সাড়ে সাতটার দিকে তৈয়ব ম্যানেজার ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী আমার ছেলেকে ধরে নিয়ে একটি ঘরে আটক করে হাত-পা বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় দেশীয় অস্ত্র ও বন্দুকের বাট দিয়ে আঘাত করে পিঠ সহ শরীরের বিভিন্ন অংশে কাটা রক্তাক্ত করা সহ গুরুতর নিলা ফুলা জখম করা হয়। তার আর্ত-চিৎকারে শরিফ হোসেনের পিতা বুলু মিয়াসহ আশ-পাশের লোকজন এগিয়ে এসে মুমূর্ষু অবস্থায় শরীফ হোসেনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করান। আহত শরিফ হোসেনের বড় ভাই ফারুক জানায়, আমরা অসহায় গরীব। আর গরীবের কোন বিচার নাই। আর তৈয়ব ম্যানেজার প্রভাবশালী এবং তার সাথে সহযোগিতা করে আসছেন, তার বিয়াই ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতা।

ভয় ও আতংক নিয়ে হামলার শিকার শরীফ হোসেনের বড় ভাই ফারুক হোসেন বলেন, এ বিষয় নিয়ে লেখার দরকার নাই। যদি আপনারা লেখালেখি করেন, তা হলে আমাদের গ্রাম ছাড়া হতে হবে। তৈয়ব ম্যানেজারসহ তার লোকজন আমাদের হুমকি দিয়েছে এ ঘটনা নিয়ে যেন কোন থানা পুলিশ না করি, করলে জানে মেরে ফেলবে তাই আমরা এ বিষয় নিয়ে কিছু করতে চাইনা, করলে আমাদের ক্ষতি হবে কারণ তারা এলাকার প্রভাবশালী। তাদের বিরুদ্ধে কেউ কোন কথা বললে তাদেরকে ধরে নিয়ে এভাবে নির্যাতন করে এর আগেও এমন অনেক ঘটনা তারা ঘটিয়েছে। তাদের কিছুই হয়নি। আমরা তাদের কিছু করতে পারবোনা। থানায় অভিযোগ করলে শুধু আমাদের বিপদ ছাড়া আর কিছুই হবেনা। কারণ প্রভাবশালী তৈয়ব ম্যানেজারের বিয়াই থানা আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতা এবং থানা কমিউনিটি পুলিশিং সমন্বয় কমিটির সভাপতি। এ বিষয় নিয়ে এলাকায় সাধারন মানুষের মাঝে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে এবং আতংক বিরাজ করছে।

এ বিষয়ে তৈয়ব ম্যানেজার মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ভাই একটি গ্রুপ আছে লালখাঁ এলাকার আওয়ামী লীগ নেতা ইবু মিয়ার ভাই গাঁজাখোর ও মাদক ব্যবসায়ী ডালিম সজিব আমার বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করছে। আপনারা জানেন আমি এলাকার মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করি, ভালো কাজ করলে খারাপরাতো এ ব্যাপারে ওঠে-পড়ে লাগবেই। আর আমি ভাই এ বিষয় কিছুই জানিনা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে ছবি পোস্ট করেছে, আমি নাকি বিএনপির প্রভাবশালী নেতা। আমি বিএনপি ছেড়ে দিছি আরো ১০ বছর আগে আমি বিএনপি করিনা, আপনারা দেখেছেন আমার লালখাঁ এলাকায় হৃদয় গ্রুপে আমির হোসেন আমু এসেছে আমি মাঝে মধ্যে চেয়ারম্যান সেন্টু ভাইয়ের কাছে যাই তার সাথে চলা ফেরা আমার। আমি আওয়ামী লীগ করি।

অপরদিকে এলাকার একটি সূত্রে জানা যায়, ফতুল্লায় গত ৩০ মে ২০২২ বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের ৪১তম মৃত্যুবার্ষিকীতে খিচুরী বিতরণ সহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানের অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে অংশগ্রহণ করেছেন । কিন্তু সে বলতেছে বিএনপি দলের সাথে তার কোন যোগাযোগ নেই, আওয়ামী লীগে যোগ দিয়েছি। আমাকে আমির হোসেন আমু ১০ বছর আগে বিএনপি থেকে বাদ দিয়ে আওয়ামী লীগে যোগদান করিয়েছে। আমি আমু ভাইয়ের স্ত্রীর নামে কলেজ করেছি আমি বিএনপি করি না।

নিউজটি শেয়ার করুন :

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন...

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..

error: Content is protected !!