1. rakibchowdhury877@gmail.com : Narayanganjer Kagoj : Narayanganjer Kagoj
  2. admin@narayanganjerkagoj.com : nkagojadmin :
মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ০১:২১ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
নববধূকে বটি দিয়ে হত্যা করেছিল স্বামী, ২ বছর পর স্বীকারোক্তি সোনারগাঁয়ে ইউএনওর ওপর হামলার চেষ্টা বিএনপি সম্প্রীতির রাজনীতি করে : খোরশেদ ফ্রান্স আরেকটি ক্রুসেড যুদ্ধ চায় : মানববন্ধনে পীর সাহেব জৌনপুরী ডিসি-এসপি ও ক্রীড়া সংস্থার সম্পাদকের সাথে জিম ওনার্স নেতাদের সাক্ষাত বন্দরে নিখোঁজের ১৭ ঘণ্টা পর গৃহবধূর রক্তমাখা লাশ উদ্ধার স্টিল মিলে বিস্ফোরণ : দুই ব্যবস্থাপকসহ ৪ কর্মকর্তা গ্রেফতার রূপগঞ্জে স্টিল মিলে বিস্ফোরণ, দগ্ধ আরো ৩ জনের মৃত্যু ফতুল্লায় প্রেমের ফাঁদে ফেলে ধর্ষণ, গ্রেফতার ধর্ষক পলাশকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানালেন জাহাজ নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নের নেতাকর্মীরা শ্রমিকনেতা পলাশের পিতার ২২তম মৃত্যবার্ষিকী আজ হিন্দু কল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে পূজা উপলক্ষে বস্ত্র দান ফতুল্লার বাড়ৈভোগ পূজামন্ডপ পরিদর্শনে এএসপি মেহেদী ইমরান সিদ্দিকী নারায়ণগঞ্জে যত্রতত্র কিশোর গ্যাং বন্দরে ভাড়াটিয়াকে পিটিয়ে হত্যা, আটক ৩

ফতুল্লায় রিকশা চোরদের কাছে জিম্মি নিরীহ চালকরা!

ফতুল্লা সংবাদদাতা
  • প্রকাশিত সময় : সোমবার, ১২ অক্টোবর, ২০২০
  • ৩১৯ বার পঠিত
ফতুল্লায় রিকশা চোরদের কাছে জিম্মি নিরীহ চালকরা!

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠেছে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চোর এবং ছিনতাইকারী চক্রের সক্রিয় সদস্যরা। প্রতিদিন কোথাও না কোথাও থেকে অটোরিকশা চালকদের নেশাজাতীয় দ্রব্য পান করিয়ে কিংবা অস্ত্রেরমুখে জিম্মি করে রিকশা ছিনতাই করে নিয়ে যাচ্ছে সংঘবদ্ধ চক্রটি। এ সময় কোন ভাবেই চালক প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি করে কখনো অটোরিকশাটি রক্ষা করতে পারলেও অধিকাংশ ক্ষেত্রেই প্রান হারাতে হচ্ছে সাধারন রিকশাচালকদের। অপ্রতিরোধ্যভাবে এমন ঘটনা অহরহ ঘটনায় এ পেশা থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে অনেক ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা গ্যারেজের মালিক এবং চালকরা।

অপরদিকে ছিনতাই কিংবা চুরি হওয়া রিকশা ছাড়িয়ে আনতে দ্বারস্থ্য হতে হচ্ছে রিকশা ছিনতাইয়ের গডফাদারদের কাছে। রিকশা মালিক পক্ষে মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে দালালদের মাধ্যমে ছাড়িয়ে আনা হচ্ছে ছিনতাইকৃত রিকশাটিকে। এ সময় প্রকৃত মালিককে ছিনতাইকারীদের কাছে অসহায়ত্ব বরন করতে হচ্ছে। অবশ্য স্থাণীয় প্রশাসন রিকশাচোর চক্রের সদস্যদের একাধিকবার গ্রেফতার হলেও ধরাছোয়ার বাইরে রয়েছে মূল হোতারা। গ্রেফতারের কিছুদিন পর জামিনে বের হয়ে আসার পর আবার সেই পুরানো পেশাতেই ফিরে যাচ্ছে রিকশাচোরের সদস্যরা। এ ব্যাপারে রিকশাচোরের সক্রিয় সদস্য এবং তাদের শেল্টারদাতাদের বিরুদ্ধে কঠোরতম ব্যবস্থা নেয়ার ব্যাপারে জেলা পুলিশ সুপারের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন সাধারন অটোরিকশা ব্যবসার সাথে জড়িত মালিকগণ।

জানা যায়, সদর উপজেলার ফতুল্লায় একর পর এক রিকশা ছিনতাই ও চুরি হওয়াতে দিশেহারা হয়ে পড়েছে রিকশা পেশার সাথে জড়িত চালক এবং মালিকরা। ঘন ঘন রিকশা চুরি হওয়ায় ভয়তে অনেকে রিকশা চালানো পেশাকে ছেড়ে নিয়ে বিকল্প কর্মসংস্থানের পিছনে ছুটছে। একের পর এক ঘটনায় তারা দিশেহারা হয়ে পড়েছে। সাধারনত রিকশা ব্যবসার সাথে যারাই জড়িত বিভিন্ন এনজিও সংস্থা খেকে লোন দিয়ে পরিবারের সুখ শান্তির কথা চিন্তা করে একটি অটোরিকশা কিনে জীবিকার নির্বাহ করে থাকেন। এমতবস্থায় রিকশা চোর কিংবা ছিনতাইকারীরা যদি জীবিকা নির্বাহের জন্য একমাত্র সম্বল টুকু ছিনিয়ে নিয়ে যায় তাহলে ভোক্তভোগী ঐ পরিবারটির অবস্থা কেমন হয় তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। একদিকে কিস্তির চাঁপ অন্যদিকে পরিবারের জীবিকা নির্বাহ করার বিষয়টি চিন্তায় আসলেই দিশেহারা হয়ে যাচ্ছে ভোক্তভোগী মানুষটি। একটা পর্যায় বিভিন্ন দুঃশ্চিন্তার কবল থেকে রক্ষা পেতে অনেকে পৃথীবির মায়া ত্যাগ করার সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়। এমন একটা পর্যায়ে ভোক্তভোগী ঐ পরিবারের অবস্থা কি হতে পারে তা অনুমেয়।

সম্প্রতি, গত ৫ সেপ্টম্বর রাতে ফতুল্লার দাপা বেপারি পাড়া থেকে যাত্রী সেজে মিশুক পরিবহনের চালক ওমর নামের এক ব্যাক্তির গাড়ীতে উঠেন। এ সময় চালক অটোরিকশাটি চালিয়ে ফতুল্লার সেহাচর লালখাঁ স্কুলের সামনে পৌছামাত্রই আগে থেকে উৎপেতে থাকা অজ্ঞাত ছিনতাইকারী দলের সক্রিয় সদস্যরা চালককে অস্ত্রেরমুখে জিম্মি করে মিশুকটি ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

১৬ সেপ্টম্বর সকালে ফতুল্লা বাজারের সামনে চালের বস্তা আনার জন্য ক্রেতা সেজে দুইজন ব্যাক্তি ভাড়া নেন। চোরদের মধ্যে একজন রিকশার বসা থেকে এবং অপরজন মিশুক পরিবহরের চালককে নিয়ে চালের বস্তা ক্রয় করার জন্য যান। মিশুক চালকের কাছে চালের বস্তা নিয়ে রাস্তায় এসে দেখে তার মিশুকটি চোরের নিয়ে গেছে। পরে অনেক খোঁজাখোজি করার পরও দুইজনের একজনকেও খোঁজে পায়নি চালক ইমরান।

২ জুলাই মুসলিমনগরের অবৈধ ইজিবাইক চোর চক্রের হোতা আরিফসহ কয়েজনকে বিশেষ অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ। আরিফ হোসেন ফতুল্লার মুসলিমনগর নয়াবাজার এলাকার আলী হোসেনের ছেলে।গ্রেফতারকৃত অন্যরা হলো- আরিফের ভগ্নিপতি বাবু, শাজাহান, রিপন, কামাল হোসেন ও সবুজ।

১৩ সেপ্টেম্বর দিবাগত রাতে ফতুল্লার বক্তাবলী ফেরিঘাট এলাকায় যাত্রী সেজে চালক বেলাল মিয়া নামের এক অটোরিকশা চালককে হত্যার পর ইজিবাইক নিয়ে পালানোকালে তিনজন ছিনতাইকারীকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয়রা। আটককৃতরা হলেন জাহিদ হাসান, রকিব এবং বোরহান।

১১ জুলাই দিবাগত রাতে ধর্মগঞ্জ ডালি পাড়া রোডস্থ এলাকা হতে র‌্যাব-১১ চোরাইকৃত ৫টি ব্যাটারি চালিত রিকশাসহ মোঃ বাবুল, মোঃ শরিফুল ও একজন কিশোরকে আটক করে।

ফতুল্লা মডেল থানার অফিসার ইনর্চাজ(ওসি) আসলাম হোসেন জানান, ফতুল্লায় আইনশৃংখলা নিয়ন্ত্রনে পুলিশ সর্বদাই কাজ করছে। ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চোরের ব্যাপারে ভোক্তভোগী কোন ব্যাক্তি অভিযোগ প্রদান করলে আমরা তাৎক্ষনিক গুরুত্বসহকারে তদন্ত করে থাকি। তারপরেও স্থানীয় কিংবা পুলিশের পক্ষ থেকে একাধিক রিকশা চোর এবং তাদের গডফাদারদের গ্রেপ্তারের মাধ্যমে আদালতে প্রেরন করা হয়েছে। এদের বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান চলমান রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন :

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন...

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..

error: Content is protected !!