1. rakibchowdhury877@gmail.com : Narayanganjer Kagoj : Narayanganjer Kagoj
  2. admin@narayanganjerkagoj.com : nkagojadmin :
রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ১১:৫৯ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
বন্যা দুর্যোগ মোকাবেলায় চেঞ্জ ফাউন্ডেশনের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ ২৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবী : কাউন্সিলর রুহুলের বিরুদ্ধে এসপি বরাবর অভিযোগ (ভিডিওসহ) ফতুল্লায় অপহৃত যুবক উদ্ধার, আটক ২ ফতুল্লায় ট্রেনে কাটা পড়ে কলেজ ছাত্র নিহত সেই বিতর্কিত মোল্লা জনির ডাইংয়ের গ্যাস-বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন গোগনগরে কৃষকলীগ নেতা দৌলত মেম্বারকে কুপিয়ে হত্যা র‍্যাবের অভিযানে ৬ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ফতুল্লায় যুবককে নির্যাতন করলো বিএনপি নেতা তৈয়ব ম্যানেজার পলাশবাড়ীতে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন গোবিন্দগঞ্জ পৌরসভার বাজেট ঘোষণা দাপা ইসলামিয়া হাফিজিয়া মাদরাসার পরিচালনা কমিটি গঠন গোগনগরে সংঘর্ষের ঘটনায় কাশেম সম্রাটকে প্রধান আসামী করে মামলা আবারও মার্কেট ভাংচুর : গোগনগরে ইউপি মেম্বার রুবেল বাহিনী বেপরোয়া! সন্ত্রাসী রাজু প্রধান ও তার বাহিনীর অত্যাচারে অতিষ্ঠ স্থানীয় বাসিন্দারা! গোবিন্দগঞ্জে বজ্রপাতে যুবকের মৃত্যু

ফুটপাতে চাঁদাবাজি করে সোহেল এখন কোটিপতি !

নারায়ণগঞ্জের কাগজ ডেস্ক
  • প্রকাশিত সময় : শুক্রবার, ৩ জুন, ২০২২
  • ১৭৪ বার পঠিত
ফুটপাতে চাঁদাবাজি করে সোহেল এখন কোটিপতি !

নারায়ণগঞ্জ শহরে বঙ্গবন্ধু সড়কে ফুটপাত দখলকারী বিশাল চাঁদাবাজ চক্রের হাত থেকে রক্ষা পেলোনা কালির বাজারের ফুটপাতের দোকানদাররাও। ফুটপাতে চাঁদাবাজ সোহেল বাহিনীর চাঁদাবাজি ছাড়াও নানা অপকর্ম করে বেড়াচ্ছেন এই চক্র। আর ফুটপাতে সামান্য হকারী করে প্রতিটি দোকান থেকে চাঁদা তুলেই কয়েক কোটি টাকার মালিক বনে গেছেন মোঃ সোহেল। চাঁদাবাজ সোহেল শহরের আলোচিত হকার জোবায়ের হত্যা মামলার অন্যতম আসামী মহসিনের বড় স্ত্রীর ছেলে।

শহরের বঙ্গবন্ধু সড়কে ফুটপাত দখল করে বসেছে কয়েক হাজার অবৈধ দোকান যা পুলিশ তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে শহরের বঙ্গবন্ধু সড়ক যাতে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকে নারায়ণগঞ্জবাসী যাতে ফুটপাত দিয়ে চলাফেরা করতে পারে। কিন্তু অপর দিকে শহরের কালি বাজার এলাকায় রাস্তা দখল করে গড়ে উঠেছে ৩’শ বেশি দোকানপাট যা শহরবাসীর গলার কাঁটা হিসেবে পরিচিত। কালিরবাজার, ফ্রেন্ডস মার্কেট, ডাকবাংলো, র‌্যাব অফিসের কার্যালয়, শিল্পকলা একাডেমী, পুরান কোর্ট সংলগ্ন অগ্রণী ব্যাংক সহ নানা গুরুত্বপূর্ণ ভবন এখানে অবস্থিত রাস্তার উপরে যে সকল দোকানপাটের জন্য সাধারণ মানুষ চরম ভোগান্তির শিকার।

একাধিক সূত্রে জানা যায়, সোহেল তার বাহিনী দিয়েই কালিরবাজার ব্যাংকের মোড় থেকে শুরু করে চাড়ারগোপ মাজার পর্যন্ত প্রতিটি দোকান থেকেই প্রতিদিন প্রায় ৩০ হাজার টাকা চাঁদা আদায় করছে। আদায়কৃত চাঁদার সামান্য কিছু অংশ থানা পুলিশকে দিলেও বাকি পুরো টাকাগুলো নিজের পকেটে নিয়ে যায় সোহেল। ফুটপাতে চাঁদার টাকা দিয়ে সোহেল ইতিমধ্যে মাসদাইর বাজার সংলগ্ন কান্দুন মিয়ার বাড়িতে একটি বিল্ডিং ও পাশে দুটি বিশাল আকৃতির দোকান এবং বন্দরে বিপুল পরিমাণে জমি ক্রয় করেছেন। পাশাপাশি মাদক ব্যবসায় পুঁজি খাটানোসহ এলাকাতে প্রচুর পরিমানে টাকা সুদের উপর ছেড়েছেন।

কালিবাজারের কয়েকজন দোকানীর সাথে কথা বলে জানা যায়, ফুটপাতে চাঁদাবাজি করে হঠাৎ কোটিপতি বনে যাওয়া সোহেল আগে এখানে ভ্যানগাড়ি করে ১৫ টাকার ইয়ারফোন, ৫ টাকার কটনবার ও বাচ্চাদের ছোট খেলনা এসব বিক্রি করতো। কিন্তু সোহেল এখান কার ফুটপাত থেকে চাঁদা তুলে এখন কোটি টাকার মালিক হয়েছে।

ফুটপাতের সোহেলের এ চাঁদাবাজির ভাগ নেন শহরের সাবেক কয়েকজন ছাত্রলীগ নেতা, আওয়ামী লীগ নেতা, সদর থানা, চাষাড়া ফাঁড়ির পুলিশ, কথিত সাংবাদিক, নাসিক কর্মচারী গোবিন্দসহ আরো অনেকে।

সোহেল সর্ম্পকে মাসদাইরের অনেকেই বলেন, ফুটপাতে চাঁদা আদায় করে ওর ভাগ্য খুলে দিয়েছে। এক সময়ে অর্থহীন সোহেল আজ কোটি টাকার মালিক। রয়েছে বাড়ি, জমি ও এলাকাতে দোকানসহ আরো কতই না কি! পুলিশের কতিপয় অর্থলোভী সদস্য এবং নামধারী নেতাদের ছত্রছায়ায় কোটিপতি বনে যাওয়া সোহেল আজ নিজেকে অনেক অহংকারী হিসেবেই নিজেকে এলাকায় প্রতিষ্ঠিত করে তুলেছে। পাশাপাশি চাঁদাবাজির টাকা দিয়ে স্থানীয় মাদক ব্যবসায়ীদের সাথে ব্যবসার যোগান দিয়ে এলাকার বিভিন্ন বয়সী ছেলেদেরকেও মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিচ্ছে সোহেল।

নিউজটি শেয়ার করুন :

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন...

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..

error: Content is protected !!