1. rakibchowdhury877@gmail.com : Narayanganjer Kagoj : Narayanganjer Kagoj
  2. admin@narayanganjerkagoj.com : nkagojadmin :
সোমবার, ০৬ জুলাই ২০২০, ০৯:৫৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
রাস্তা সংস্কারের জন্য বৈঠকখানা ফাউন্ডেশনকে অর্থ প্রদান করলেন ফরিদ আহম্মেদ লিটন নির্মল রঞ্জন গুহ, আলো ও নিজাম উদ্দিনের রোগমুক্তি কামনায় জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের দোয়া করোনামুক্ত ও পুরোপুরি সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন শ্রমিক নেতা পলাশ রূপগঞ্জে ব্যবসায়ী হত্যার বিচার দাবিতে মানববন্ধন আড়াইহাজারে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ১ আড়াইহাজারে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে শ্রমিক নিহত আড়াইহাজারে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু ফতুল্লায় মাদকসহ আকাশ গ্রেফতার পাগলায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ইলেকট্রিক মিস্ত্রির মৃত্যু সাংবাদিক রণজিৎ মোদকের ৬৫তম জন্মদিন আজ ফতুল্লার বাইতুল আফিয়া মসজিদ সড়কের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন বক্তাবলীর আফাজ চেয়ারম্যান আর নেই আলোকিত ফতুল্লার উদ্যোগে হোমিও ওষুধ বিতরণ ফতুল্লায় থেমে নেই কেমিস্ট মিজান-নাজমুলের ফেনসিডিলের ব্যবসা ফতুল্লায় ডাইংয়ে অগ্নিকান্ড

বন্দরের সাবদীতে প্রবাসীর স্ত্রীর আত্মহত্যা

বন্দর সংবাদদাতা
  • প্রকাশিত সময় : সোমবার, ১৫ জুন, ২০২০
  • ২১৭ বার পঠিত
বন্দরের সাবদীতে প্রবাসীর স্ত্রীর আত্মহত্যা

নারায়ণগঞ্জের বন্দরে সাবদী এলাকায় বিয়ের এগারো মাসের মাথায় প্রবাসীর স্ত্রীর সুমি নামে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে। তিনি আইছতলা গ্রামের মৃত আলী আক্কাস মিয়ার ছেলে আল আমিন মিয়ার স্ত্রী। রোববার ১৪ জুন সকাল ১০টার দিকে শশুর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। তবে শশুর বাড়ির পরিবাবের দাবী করছে তার ছেলের বউ পরকীয়ায় আসক্ত ছিল।

এলাকাবাসীর সূত্রে জানা, রোববার সকালে আইছতলা গ্রামের দক্ষিণ পাশে নতুন ঘর তোলা নিয়ে পরিবারের সবাই ব্যস্ত ছিল। কিন্তু তার ছেলের বউ সুমি বাড়িতে একাই ছিল, পরে গোসল করে ঘরের ভিতরে চলে যায়। এর ঘন্টা কয়েক পর বাড়িতে প্রবেশ করে ঘরের দরজা বন্ধ দেখতে পায়। পরে বাড়ির আশে-পাশের লোকজনকে ডেকে ঘরের দরজা ভেঙ্গে দেখতে পায় ঘরের আড়ার সাথে উড়না পেচিয়ে ঝুলে আছে।

সুমির শাশুড়ি সুফিয়া বেগম বলেন, প্রতিদিনের মত ফজর নামাজের পর ঘুম থেকে উঠে রান্না করে রাখি। কারণ আমাদের এখানে সকালে গ্যাস থাকে না। আমার মেয়ে আকলিমার নতুন ঘর তোলা নিয়ে ব্যস্ত ছিলাম এবং আসার সময় বলে আসছি যেনো খাবার খেয়ে ঘরে থাকে কিন্তু ঘন্টা কয়েকপর এসে দেখি ঘরের দরজা বন্ধ তখন আশেপাশের লোকজনকে ডেকে এনে দরজা ভেঙ্গে দেখি উড়না পেচিয়ে ঝুলে আছে।

তিনি আরও জানান, আমার ছেলের বউ প্রতিদিন রাতে মোবাইল ফোনে কার সাথে জানি কথা বলে। কিন্তু আমি নিষেধ করি কথা বলতে এবং তার মাকেও বিষয়টি জানিয়েছি, তবে কোন কথা শুনে নাই। এভাবে প্রতিদিন কথা বলে মোবাইল ফোনে। সকালে দেখে গেলাম ভালো কিন্তু হঠাৎ করে ফাঁসি দিলো এর কারণ জানি না।

এ ঘটনার খবর পেয়ে মদনগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ির ইন্সপেক্টর সৈয়দ মিজানুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বলেন, সুমির লাশ মাটিতে ছিলো, পাশের বাড়ির এক ছেলে লাশটি নামিয়েছে। এটা হত্যা নাকি আত্মহত্যা ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট আসার পরে জানা যাবে।

নিউজটি শেয়ার করুন :

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন...

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..

error: Content is protected !!