সবজি-মাংসে ক্রেতার স্বস্তি, চড়া মাছের বাজার
  1. rakibchowdhury877@gmail.com : Narayanganjer Kagoj : Narayanganjer Kagoj
  2. admin@narayanganjerkagoj.com : Narayanganjer Kagoj : Narayanganjer Kagoj
সবজি-মাংসে ক্রেতার স্বস্তি, চড়া মাছের বাজার
মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ১২:০৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
মৃত্যুর পর ঋণ নিয়ছেন ১৪ জন ফতুল্লায় অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার রূপগঞ্জে ছাত্রলীগ কর্মীকে কুপিয়ে জখম বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপে চ্যাম্পিয়ন নারায়ণগঞ্জ দলকে সংবর্ধনা নারায়ণগঞ্জে জমে উঠতে শুরু করেছে কোরবানির পশুর হাট ধলেশ্বরী নদী থেকে ইটবাঁধা মরদেহ উদ্ধার ফতুল্লায় শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী আল-আমিন গ্রেফতার ফতুল্লায় দূর্জয়-সিফাত বাহিনীর ৬ সদস্য গ্রেপ্তার সাইবার নিরাপত্তা আইন মত প্রকাশের অন্তরায় : টিআইবি এখন গরিবেরা তিনবেলা ভাত খায় আর ধনীরা খায় আটা : খাদ্যমন্ত্রী সামেদ আলী আমার শেল্টারে ছিলো না : শওকত আলী সোনারগাঁয়ের যাত্রীবাহী বাসে হঠাৎ আগুন চিন্তায় মোদি আট মাত্রার ভূমিকম্প হতে পারে ঢাকায় : ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী রূপগঞ্জে ওটিতে প্রসূতির মৃত্যু, ক্লিনিক ভাঙচুর

সবজি-মাংসে ক্রেতার স্বস্তি, চড়া মাছের বাজার

নারায়ণগঞ্জের কাগজ ডেস্ক
  • প্রকাশিত সময় : শুক্রবার, ২২ মার্চ, ২০২৪
  • ২০২ বার পঠিত
সবজি-মাংসে ক্রেতার স্বস্তি, চড়া মাছের বাজার

রমজানের ২য় সপ্তাহে কিছুটা কমতে শুরু করেছে নিত্যপণ্যের বাজার। অন্যান্য সময় রমজান মাসে দেশে নিত্যপণ্যের দাম বিভিন্ন কারণ দেখিয়ে বাড়তে থাকে। তবে এবারের রমজানে নিত্যপণ্যের কিছুটা দাম কমায় স্বস্তিতে আছেন নগরবাসী। বাজারে মাংস আর সবজির দামে স্বস্তি প্রকাশ করেছেন ক্রেতারা। অন্যদিকে ভালো ফলন ও আমদানি বাড়ার কারণে দাম কমতির দিকে বলে জানিয়েছেন বিক্রেতারা। তবে কমেনি মাছের বাজার। উৎপাদনে ঘাটতির অভিযোগে নদীর এবং চাষের মাছগুলো দাম বাড়ছে পাল্লা দিয়ে। এতে বিপাকে পরেছে নগরবাসী।

বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) দুপুরে নগরীর দ্বিগুবাবুর বাজার ঘুরে এরকম চিত্র লক্ষ্য করা যায়। এবারের রমজান মাসের শুরুর দিকে নিত্যপণ্যের দাম বেড়েছিল। তবে রমজানে ১০ রোজায় দাম কমায় নগরবাসীর হতাশা কমেছে। বাজারে কম দামে শাক-সবজি কিনতে পেরে খুশি সাধারণ ক্রেতারা।

সরেজমিনে বাজার ঘুরে জানা যায়, গত সপ্তাহের তুলনায় শাক-সবজির দাম কমেছে ৫-২০ টাকা। বর্তমান বাজারে কেজি প্রতি আলু ৩৬ টাকা, পেঁয়াজ ৬০ টাকা, সিম ২০ টাকা, টমেটো ৪০ টাকা, বেগুন ৪০ টাকা, লেবুর হালি ৩০-৬০ টাকা, ঢেঁড়শ ৬০ টাকা, পটল ৬০ টাকা, কহি ৪০ টাকা, উস্তা ৪০ টাকা, কাঁচাপেঁপে ৪০ টাকা, শসা ৪০ টাকা, মরিচ ৬০ টাকা, আদা ১৪০-১৮০ টাকা, রসুন ১২০-২২০ টাকা, কুমড়া ২৫-৩০ টাকা, লাউ ৩০-৪০ টাকা, পুইশাক আঁটি ৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

গত সপ্তাহে বাজারে প্রতি কেজি আলু ৩৬ টাকা, পেঁয়াজ ৮০ টাকা, সিম ৪০ টাকা, টমেটো ৫০ টাকা, বেগুন ৬০ টাকা, লেবুর হালি ৬০-৮০ টাকা, ঢেঁড়শ ৬০ টাকা, পটল ৬০ টাকা, উস্তা ৬০ টাকা, মরিচ ৬০ টাকা, কুমড়া ২৫-৩০ টাকা, লাউ ৪০ টাকা, পুইশাক ৩০ টাকায় বিক্রি হয়েছিল।

মাছের বাজার ঘুরে জানা যায়, গত সপ্তাহের তুলনায় এ সপ্তাহে মাছের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে ১০০-১৫০ টাকা। বর্তমান বাজারে প্রতি কেজি রুই মাছ ৪০০ টাকা, কাতলা ৪৫০ টাকা, তেলাপিয়া ৩০০ টাকা, আইর ১০০০ টাকা, ইলিশ ১২০০ থেকে ২০০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। গত সপ্তাহে বাজারে প্রতি কেজি রুই মাছ ৩৫০ টাকা, কাতলা ৩৫০ টাকা, তেলাপিয়া ২৫০-২৮০ টাকা, আইর ৮০০-১০০০ টাকা, ইলিশ ১০০০-১৬০০ টাকায় বিক্রি হয়েছিল।

এছাড়া মাংসের বাজার ঘুরে জানা যায়, গত সপ্তাহের তুলনায় মাংসের বাজারের দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। বর্তমান বাজারে গরুর মাংস প্রতি কেজি ৭৫০-৭৮০ টাকা, খাসির মাংস ১০০০-১১০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া বাজারে প্রতি কেজি বয়লার মুরগী ২২০ টাকা, লেয়ার লাল ৩৩০ টাকা, লেয়ার সাদা ৩৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। বর্তমান বাজারে প্রতি হালি হাঁসের ডিম ৫৬ টাকা, দেশি মুরগীর ডিম ৮০ টাকা, লাল ডিম ৪০ টাকা ও সাদা ডিম ৩৮ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

দ্বিগু বাবুর বাজারে আসা ক্রেতা হুমায়ুন কবির বলেন, আমি বেসরকারী একটি প্রতিষ্ঠানে স্বল্প বেতনে চাকুরি করি। বেতনের অর্ধেক টাকা চলে যায় বাড়ি ভাড়া, গ্যাস বিল ও বিদ্যুৎ বিল দিতে গিয়ে। এর মধ্যে নিত্যপণ্যের দাম যদি বাড়তে থাকে, তাহলে না খেয়ে মরতে হবে।

বাজারে আসা আরেক ক্রেতা আবু সিদ্দিক বলেন, কোনো অজুহাত পেলেই আমাদের দেশের খাদ্যপণ্যের দাম বেড়ে যায়। এবার রোজার শুরু দিকে কারণ ছাড়াই বেড়ে গেছে নিত্যপণ্যের দাম। তবে, আজকের বাজারে সবজি কম দামে কিনতে পেরেছি।

নিউজটি শেয়ার করুন :

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন...

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..