1. rakibchowdhury877@gmail.com : Narayanganjer Kagoj : Narayanganjer Kagoj
  2. admin@narayanganjerkagoj.com : nkagojadmin :
শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ১০:২৬ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ফতুল্লায় স্কুলের সীমানা প্রাচীর ধসে আহত ৩ মামা-ভাগ্নির হুমকিতে ঘরছাড়া মামলার বাদী ষড়যন্ত্রকারীরা জনস্রোতের কাছে নিষ্ক্রিয় : টিপু বাসায় এসে তৈমুরকে মিষ্টি খাওয়ালেন আইভী সোনারগাঁয়ে পুলিশের গাড়ি খাদে, দুই এসআই নিহত আইভীর বাসার সামনে নেতাকর্মীদের বিজয় উল্লাস নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনে আইভীর হ্যাটট্রিক জয় স্ত্রী ও শ্বশুরের প্রতারণার ফাঁদে স্বামী না’গঞ্জ রেলস্টেশনে ভয়ংকর খুনির মিউজিক ভিডিও হয়েছিল সাবেক মেম্বার নবু হোসেনের ছেলে মনির হোসেন গ্রেফতার নগরীতে আইভীর পক্ষে শ্রমিকলীগের বিশাল নির্বাচনী গনসংযোগ মেয়র আইভীর পক্ষে ফতুল্লা থানা শ্রমিকলীগের নির্বাচনী প্রচারনা নারায়ণগঞ্জবাসীকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানালেন কাজী আরিফ নারায়ণগঞ্জবাসীকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানালেন শাহ্ আলম নতুন বছরে নারায়ণগঞ্জবাসীকে মীর সোহেল আলীর পক্ষে মাসুমের শুভেচ্ছা

সাবেক মেম্বার নবু হোসেনের ছেলে মনির হোসেন গ্রেফতার

নারায়ণগঞ্জের কাগজ ডেস্ক
  • প্রকাশিত সময় : শুক্রবার, ১৪ জানুয়ারী, ২০২২
  • ৭১ বার পঠিত
সাবেক মেম্বার নবু হোসেনের ছেলে মনির হোসেন গ্রেফতার

জামাইয়ের বাড়ি আত্মসাৎ করতে না পেরে বাড়ির কেয়ারটেকার আব্দুর রাজ্জাকে মারধরের মামলায় শ্বশুর মনির হোসেন গ্রেফতার হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (১৩ ডিসেম্বর) দুপুরে শিবু মার্কেট এলাকায় থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে ফতুল্লা থানা পুলিশ। মামলা নং (২৫)।

গ্রেপ্তারকৃত মনির হোসেন কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের সা‌বেক মেম্বার নবু হোসেনের ছেলে। এ মামলায় শ্বশুর গ্রেফতার হলেও পলাতক রয়েছে স্ত্রী শামীমা পারভিন শিমু, শাশুড়ি শাহানাজ বেগমের।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ও আবুল খায়ের রনির পূর্ব সেহাচর লালখা এলাকায় ষষ্ঠ তলা বিল্ডিংয়ে কেয়ারটেকার হিসেবে কর্মরত আছি। এবং বাড়ির সমস্ত দেখাশোনা ও বাড়া উত্তোলন দায়িত্বে রয়েছি। বাড়ির মালিক আবুল খায়ের রনির সাথে তার স্ত্রীর কিছুদিন ধরে পারিবারিক বিরোধ চলছে। গত ১৪ ডিসেম্বর বিকেলে বাড়ির বারা উত্তোলন করতে গেলে মনির হোসেন ও তার স্ত্রী আমাকে বাধা দেয়। পরবর্তীতে আমি পুনরায় ভাড়া আদায় করতে গেলে আমাকে টেনে হিঁচড়ে চতুর্থ তলায় নিয়ে এসে গালাগালি সহ মারধোর করতে শুরু করে। একপর্যায়ে তাদেরকে আমি বাধা দিলে আমার মাথায় সজোরে আঘাত করে। এতে আমি লুটিয়ে পড়লে শামীমা পারভীন শিমু চাকু দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে আমার মাথায় কোপ দেয়। এ সময় আমার ডাক চিৎকারে আশে পাশের ফ্ল্যাটের লোকজন এগিয়ে আসলে তারা আমাকে হত্যার হুমকি দিয়ে চলে যায়। পরবর্তীতে আমাকে উদ্ধার করে ভিক্টোরিয়া জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এ বিষয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফতুল্লা মডেল থানার এসআই শামীম জানান, এ মামলায় একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারের অভিযান চলছে।

নিউজটি শেয়ার করুন :

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন...

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..

error: Content is protected !!