1. rakibchowdhury877@gmail.com : Narayanganjer Kagoj : Narayanganjer Kagoj
  2. admin@narayanganjerkagoj.com : nkagojadmin :
বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫:৩৭ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
জাকির খানের জন্মদিন পালন করলেন এল.কে রনি প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন পালন করলেন ফতুল্লা থানা যুবলীগ প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে শরীফুল হকের উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ ও দোয়া মাহফিল ফতুল্লা থানা শেখ রাসেল শিশু-কিশোর পরিষদের উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন পালন অনিয়ম-ই এখন নিয়ম : শামীম ওসমান রূপগঞ্জে ওপেন হাউজ ডে অনুষ্ঠিত রূপগঞ্জে ৬ গরু চোর আটক প্রধানমন্ত্রীর দেয়া চেক পেল মসজিদে অগ্নিকান্ডে নিহতের স্বজনরা প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে ছাত্রলীগ নেতা বাবু’র শুভেচ্ছা প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা লিটনের শুভেচ্ছা প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে যুবলীগ নেতা মাসুমের শুভেচ্ছা ফতুল্লা প্রেস ক্লাবের বৃক্ষরোপন কর্মসূচি সিদ্ধিরগঞ্জে প্রেমিকার বিয়ের দিনে প্রেমিকের আত্মহত্যা সস্তাপুরে সম্পত্তি আত্মসাত করতে জুলহাসের মিথ্যাচারিতা ফতুল্লা থানা শেখ রাসেল শিশু-কিশোর পরিষদের নবগঠিত কমিটিকে ফুলেল শুভেচ্ছা

সিদ্ধিরগঞ্জে নকল প্রসাধনী ও ইলেকট্রনিক সামগ্রীসহ আটক ৭

সিদ্ধিরগঞ্জ সংবাদদাতা
  • প্রকাশিত সময় : শনিবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৯৯ বার পঠিত
সিদ্ধিরগঞ্জে নকল প্রসাধনী ও ইলেকট্রনিক সামগ্রীসহ আটক ৭

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইলে মুন স্টার মার্কেটিং প্রাইভেট লিমিটেডের কারখানায় অভিযান চালিয়ে প্রায় ৯০ কোটি টাকার নকল প্রসাধনী ও ইলেকট্রনিক সামগ্রী জব্দ করেছেন র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। বৃহস্পতিবার (৩ সেপ্টেম্বর) রাতে র‌্যাব-৩ এর গোয়েন্দা বিভাগ ও বিএসটিআইয়ের সহযোগিতায় র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসুর নেতৃত্বে এ অভিযান চালানো হয়।

এ ঘটনায় সাতজনকে আটক করা হয়েছে। আটকরা হলেন – মুন স্টাররের মালিক বেলায়েত হোসেন, মঈনুল ইসলাম, সোহাগ, আমিনুল ইসলাম, সিরাজুল ইসলাম, কাওছার হোসেন ও রাজিব সেরনিয়াবাদ।

র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসু জানান, কারখানার ভেতর ও গোডাউন থেকে প্রায় ৯০ কোটি টাকারও বেশি মূল্যের নকল প্রসাধনী ও ইলেকট্রনিক সামগ্রী জব্দ করা হয়েছে। এসব নকল পণ্য যাতে তারা বাজারে সরবরাহ করতে না পারে এ জন্য কারখানা সিলগালা করে দেয়া হয়েছে।

তিনি আরও জানান, আটকরা ২০১৭ সালের মেয়াদোত্তীর্ণ ক্যামিকেল দিয়ে একটি মাত্র মেশিনে কোবরা, ফগ, ব্লুলেডি, সিগনেচারসহ নামিদামি কোম্পানির লেভেল ছাপিয়ে পণ্য তৈরি করে তা বাজারজাত করে আসছে। এসব নকলপণ্য ব্যবহার করে মানুষ স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পড়ছে। এসব পণ্য উৎপাদনের জন্য কোনো কাজগপত্র দেখাতে পারেননি কোম্পানির মালিক বেলায়েত হোসেন। তার কাছে মিথানেল ব্যবহারের জন্য মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের লাইসেন্স দেখতে চাইলেও তিনি তা দেখাতে পারেনি।

উল্লেখ্য, প্রায় ৯ মাস আগে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ এই মুন স্টার কারখানায় অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ নকল প্রসাধনী সামগ্রী ও ইলেকট্রনিক সামগ্রী জব্দ করে কারাখানাটি সিলগালা করে দেয়। পরবর্তীতে সুযোগ পেয়ে আবারও নকল প্রসাধনী ও ইলেকট্রনিক সামগ্রী উৎপাদন ও বাজারজাত করে আসছিলেন কারখানার মালিক বেলায়েত হোসেন।

নিউজটি শেয়ার করুন :

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন...

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..

error: Content is protected !!