1. rakibchowdhury877@gmail.com : Narayanganjer Kagoj : Narayanganjer Kagoj
  2. admin@narayanganjerkagoj.com : nkagojadmin :
সোমবার, ০৬ জুলাই ২০২০, ০৭:১২ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
রাস্তা সংস্কারের জন্য বৈঠকখানা ফাউন্ডেশনকে অর্থ প্রদান করলেন ফরিদ আহম্মেদ লিটন নির্মল রঞ্জন গুহ, আলো ও নিজাম উদ্দিনের রোগমুক্তি কামনায় জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের দোয়া করোনামুক্ত ও পুরোপুরি সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন শ্রমিক নেতা পলাশ রূপগঞ্জে ব্যবসায়ী হত্যার বিচার দাবিতে মানববন্ধন আড়াইহাজারে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ১ আড়াইহাজারে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে শ্রমিক নিহত আড়াইহাজারে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু ফতুল্লায় মাদকসহ আকাশ গ্রেফতার পাগলায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ইলেকট্রিক মিস্ত্রির মৃত্যু সাংবাদিক রণজিৎ মোদকের ৬৫তম জন্মদিন আজ ফতুল্লার বাইতুল আফিয়া মসজিদ সড়কের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন বক্তাবলীর আফাজ চেয়ারম্যান আর নেই আলোকিত ফতুল্লার উদ্যোগে হোমিও ওষুধ বিতরণ ফতুল্লায় থেমে নেই কেমিস্ট মিজান-নাজমুলের ফেনসিডিলের ব্যবসা ফতুল্লায় ডাইংয়ে অগ্নিকান্ড

সোনারগাঁয়ে মোবাইল ফোন বিস্ফোরণ, আহত মা-ছেলে

সোনারগাঁ সংবাদদাতা
  • প্রকাশিত সময় : রবিবার, ৭ জুন, ২০২০
  • ২৭১ বার পঠিত
সোনারগাঁয়ে মোবাইল ফোন বিস্ফোরণ, আহত মা-ছেলে

সোনারগাঁ উপজেলার পৌরসভার জয়রামপুর গ্রামে রোববার সকালে মোবাইল ফোন বিস্ফোরনে মা-ছেলে দ্গ্ধ হয়ে মারাত্মক ভাবে আহত হয়েছে। এলাকাবাসী আহতদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ বার্ন ইউনিটে ভর্তি করেছে।

সোনারগাঁয়ে কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থী মোবাইল ফোন চার্জে বসিয়ে হেডফোন কানে লাগিয়ে কথা বলার সময় আগুন লেগে এ বিস্ফোরণের সৃষ্টি হয়।

জানা যায়, উপজেলার জয়রামপুর গ্রামের সোনারগাঁ উপজেলার অফিস সহকারী মিজানুর রহমানের বাড়ির ভাড়াটিয়া বানুরানী দাস (৪৫) ও তার কলেজ পড়ুয়া ছেলে অপূর্ব দাস (১৭) রোববার সকালে মোবাইল ফোন চার্জে লাগিয়ে হেডফোন কানে দিয়ে কথা বলার সময় বিদ্যুতায়িত হয়ে মোবাইল ফোনটি বিস্ফোরিত হয়ে শরীরে আগুন লেগে যায়। এমন ঘটনা দেখে মা বানুরানী সন্তানকে বাচাঁতে আগুন নিয়ন্ত্রের চেষ্টা করেন। এসময় আগুনে পুড়ে মা-ছেলে মারাত্মক ভাবে দ্বগ্ধ হয়। আহতদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে।

এদিকে তার পাশের রুমের ভাড়াটিয়া খাদিজা আক্তার জানান, সকাল বেলা হঠাৎ করে বিকট আওয়াজ শুনে ঘুম থেকে উঠে দেখি তাদের ঘরে আগুন জ্বলছে। এ সময় ডাক চিৎকার দিলে আশপাশের সবাই এগিয়ে এসে তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন।

বাড়ির মালিক মিজানুর রহমান জানান, কিভাবে আগুন লেগেছে তা সঠিক ভাবে বলা যাচ্ছে না। তবে তাদের উদ্ধার করতে গেলে শিক্ষার্থী অপূর্বের কানে হেডফোন লাগানো ছিল। সেটি আগুনে পুড়ছিল। এ সময় তার মুখ ও বুক পুড়ে গেছে। আগুনে খাট, তোশক ও আসবাবপত্র পুড়েছে। তার মায়েরও মাথার চুল পোড়া ছিল ।

নিউজটি শেয়ার করুন :

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন...

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..

error: Content is protected !!