1. rakibchowdhury877@gmail.com : Narayanganjer Kagoj : Narayanganjer Kagoj
  2. admin@narayanganjerkagoj.com : nkagojadmin :
মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ০৯:৫০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ফতুল্লা রেলস্টেশনে ছাত্রলীগ নেতা বাবুর নেতৃত্বে অবৈধ মেলা উচ্ছেদ কথিত ছাত্রলীগ নেতা শুভ বেপরোয়া! সাংবাদিক সমাজ জাতির বিবেক : ফরিদ আহম্মেদ লিটন ফতুল্লায় কিশোর গ্যাং লিডার ডিব্বা রনি গ্রেফতার টাঙ্গাইলেও এসআই কামরুল হাসানের ১ম স্থান অর্জন পুলিশ সাংবাদিক মিলে কাজ করলে অপরাধ থাকবে না : ইমরান সিদ্দিকী বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলীর সুস্থতা কামনায় ফতুল্লা প্রেস ক্লাবের দোয়া ফতুল্লায় হেরোইনসহ গ্রেফতার ১ ফতুল্লায় মাদক ব্যবসায়ী নাসির ও আলামিন বেপরোয়া প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ সদর উপজেলা ইউএনও’র সাথে মুক্তিযোদ্ধাদের মতবিনিময় সভা নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলায় সমবায়ীদের ভ্রাম্যমাণ প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত ফতুল্লায় অপহৃত কিশোরী উদ্ধার, আটক ১ ফতুল্লায় হেরোইনসহ আটক ২ ফতুল্লায় দুই ছিনতাইকারীকে গনপিটুনি

স্বল্প পরিসরে আদালত খুললেও সন্তুষ্ট নন সাধারণ আইনজীবিরা

নিজস্ব সংবাদদাতা
  • প্রকাশিত সময় : সোমবার, ১৩ জুলাই, ২০২০
  • ৩৫৬ বার পঠিত
স্বল্প পরিসরে আদালত খুললেও সন্তুষ্ট নন সাধারণ আইনজীবিরা

মহামারি করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে দীর্ঘ সময় ধরে বন্ধ থাকা এবং ভার্চুয়াল আদালতের মাধ্যমে বিচার কার্যক্রম পরিচালনায় ক্ষিপ্ত ছিলো সাধারণ আইনজীবিরা। আইনজীবিদের আন্দোলনের মুখে পড়ে আদালত স্বল্প পরিসরে খুললেও এখনো সন্তুষ্ট নন সাধারণ আইনজীবিরা। তাদের দাবী পুরোপুরি খুলে দেওয়া হোক আদালত।

এ বিষয়ে রবিবার (১২ জুলাই) নারায়ণগঞ্জ আদালতের সিনিয়র আইনজীবি রফিক আহম্মেদ এর সাথে কথা হলে তিনি বলেন, আজ থেকে স্বল্প পরিসরে আদালত খুলে দেওয়া হয়েছে এবং সিআর মামলার ফাইলিং চলবে।

ভার্চুয়াল আদালতের জন্য আইনজীবিদের প্রশিক্ষনের বিষয়ে তিনি বলেন, প্রধান বিচারপতি ও আইনমন্ত্রী দুইজনের মতের সাথে অমিল দেখা দিয়েছে। আইনমন্ত্রী চাচ্ছে আদালত চলুক কিন্তু প্রধান বিচারপতি চাচ্ছে ভার্চুয়াল আদালত চলুক। কিন্তু ভার্চুয়াল আদালত চলতে হলে প্রশিক্ষনের প্রয়োজন। মেশিন অপারেটর, কম্পিউটার চালানো ও এন্ড্রয়েড মোবাইল প্রয়োজন কিন্তু এটা আমাদের সকলের পক্ষে সম্ভব নয়। অনেক আইনজীবি আছে যারা ৪ হাজার টাকা বাসা ভাড়া দিয়ে থাকে তাদের পক্ষে কি এন্ড্রয়েড মোবাইল কিনা সম্ভব। আর বারে পরীক্ষা দেবার সময় তখনতো এটা বলে নাই। করোনার কারণে এই ভার্চুয়াল কথা আসছে এই প্রশিক্ষণ দিবে কবে আর শুরুই হবে কবে।

তিনি পুরোপুরি আদালত খুলে দেওয়া ও স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়ে বলেন, স্বল্প পরিসরে আদালত না খুলে পুরোপুরি খুলা প্রয়োজন বিচারকের বিচারের জন্য, আইনজীবিদের রুজি রুটি ও সাধারণ মানুষের বিচার পাওয়ার জন্য আর আদালত বন্ধ থাকলে অপরাধ বেড়ে যাবে। কারণ আদালত ও থানা একে অপরের পরিপূরক। আদালত ও থানা পুরোপুরি খোলা না থাকলে বেড়ে যাবে খুন খারাপি, রাহাজানি, ভূমি দখল, মাদক ব্যবসা সহ আরো অনেক অপরাধ। আর যদি আদালত খোলা থাকে তাহলে মানুষ এগুলো করতে ভয় পাবে। আর বর্তমান এই মহামারিতে সাধারণত আসামী হাজিরার জন্যই সমাগম হবে সেক্ষেত্রে বিচারক যদি আইনজীবিদের বিশ্বাস করে আইনজীবিদের মাধ্যমে কাগজে আসামীর স্বাক্ষরের মাধ্যমে হাজিরা হয়ে গেলে স্বাস্থ্য সুরক্ষা থাকা যাবে কারণ আসামীকে আর আদালতে আসতে হবে না।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে আদালত খুলে দেবার যে সাধারণ আইনজীবিদের আন্দোলন ছিলো তা কি বন্ধ? এ বিষয়ে তিনি বলেন, আপাতত আমাদের আন্দোলন স্থগিত রয়েছে। আমরা সরকারি নির্দেশনা দেখবো আইনজীবি ও জনগনের স্বার্থ আদায় হচ্ছে কিনা। যদি আদায় না হয় তাহলে আমরা আইনমন্ত্রী ও প্রধান বিচারপতি মহোদয়কে বলবো আপনারা যাই করেন সমন্বয়ের মাধ্যমে আইনজীবিদের রুজি রুটির কথা বিবেচনা করে করেন কারণ সচিব, ম্যাজিস্ট্রেট ও সরকারি কর্মকর্তারা বেতন পাচ্ছে কিন্তু আইনজীবিরা কিন্তু কোন বেতন পায় না। সরকার সচিব, ম্যাজিস্ট্রেট ও সরকারি কর্মকর্তাদের মতো আইনজীবিদের বেতনের ব্যবস্থা করে দেখ বা আইনজীবিদের পরিবারের খাবার সামগ্রী, বাসা ভাড়া ও সন্তানদের শিক্ষা ব্যয় বহন করলে আইনজীবিরা আদালত পুরোপুরি খুলে দেবার জন্য আর আন্দোলনের প্রয়োজন হবে না। কারণ আমরা আইনজীবিরা কালো কোর্ট পড়ে আদালতে আসি বলেই সবাই কিন্তু ধনী নয়। সরকার সাধারণ মানুষের কথা চিন্তা করে খাবার ত্রাণ সহায়তা এবং প্রতি সেক্টরও খুলে দিয়েছে শুধু চিন্তা করেনি আইনজীবিদের কথা।

নিউজটি শেয়ার করুন :

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন...

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..

error: Content is protected !!